বেসন ও হলুদের ফেসপ্যাক বানানোর নিয়ম ও ব্যবহারবিধি

যুগ যুগ ধরে ব্যবহার হয়ে আসা বেসন এমন একটি উপাদান যা প্রতিটি মানুষের ঘরে ঘরেই পাওয়া যায়। এই বেসন আমাদের ত্বকে, শরীরের নানা অঙ্গ যেমন হাত পা সুন্দর করতে অনেক উপকারী। বহু আগে থেকেই উপকরণটি সৌন্দর্যবর্ধনে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এটি আমাদের ত্বকের এক্সফলিয়েটর হিসেবে কাজ করে। ত্বককে ভিতর থেকে পরিষ্কার করে দাগহীন উজ্জ্বল করতেও এটি কাজ করে।

বেসন অন্যান্য নানা প্রাকৃতিক উপাদান এর সাথে মিক্স করে ফেইসপ্যাক হিসেবে বানিয়ে ব্যবহার করা যায়। আজকে আমরা আলোচনা করবো এরকমই একটি কার্যকরী প্রাকৃতিক ঘরোয়া উপাদান কাঁচা হলুদ কে নিয়ে। কাঁচা হলুদের সাথে বেসন মিশিয়ে অনেক গুলো ফেইসপ্যাক বানানো যায় যা আমাদের শরীরের ত্বক, হাত, পা, মুখমণ্ডল সুন্দর এবং উজ্জ্বল করতে অনেক বেশি কার্যকরী। এখন এই বেসন ও হলুদের ফেসপ্যাকগুলো আপনারা কিভাবে বানাবেন, কিভাবে এগুলো ব্যবহার করবেন, কতদিন ব্যবহার করবেন সে সম্পর্কে আজকে আলোচনা করবো।

এছাড়াও আমাদের অন্যান্য পোস্টঃ মুখে কাঁচা হলুদের উপকারিতা এবং ব্যবহারের নিয়ম, হলুদ দিয়ে রূপচর্চা, ফেস মাস্ক ব্যবহারের নিয়ম এগুলো পড়ে নিন।

সতর্কতাঃ হলুদ কখনোই দিনে ব্যবহার করা উচিৎ নয়। এতে ত্বক কালো হয়ে যেতে পারে। হলুদ ব্যবহার এর উপযুক্ত ফলাফল পেতে হলে এটি রাতে ব্যবহার করাই শ্রেয়।

ব্রণের দাগ দূর করতে বেসন ও হলুদের ফেসপ্যাক

উপকরণ

  • বেসন ৩-৪ চা চামচ
  • হলুদ ১/২ চা চামচ
  • আলুর রস ১ চা চামচ
  • পানি / গোলাপজল ২-৩ চা চামচ

বানানোর নিয়ম

একটি পরিষ্কার পাত্রে ৩-৪ চা চামচ বেসন নিয়ে তাতে ১/২ চামচ হলুদের গুঁড়া নিন। একটি আলু ছিলে তার অর্ধেক টুকু কুচি করে নিন। এবং তা ব্লেন্ড করে তার রস সংগ্রহ করুন। এই রস এবং পানি বাকি উপাদান গুলোর সাথে মিশিয়ে ভালো ভাবে নাড়তে থাকুন।

একটি সুন্দর পেস্ট তৈরি হয়ে গেলে আপনার ত্বকের যেখানে যেখানে ব্রণের দাগ আছে সেখানে সেখানে ফেইসপ্যাকটি ব্যবহার করুন। এই ফেইসপ্যাকটি আপনার পুরো ফেইসে ব্যবহার করার প্রয়োজন নেই। সপ্তাহে ২-৩ দিন এই ফেইসপ্যাক ব্যবহার করুন। ব্রণের দাগ দূর হয়ে সেই দাগের অংশটুকু উজ্জ্বল হয়ে উঠবে।

আরো পড়ুনঃ ব্রণের উপর নারিকেল তেল: এটি ভাল না খারাপ?, ব্রণ দূর করার উপায়ঃ ঘরোয়া পদ্ধতি, ঘাড়ের কালো দাগ দূর করার উপায়ঃ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ

স্ক্রিন চকচকে এবং গ্লাস স্ক্রিন করতে বেসন ও হলুদের ফেসপ্যাক

উপকরণ

  • বেসন ২-৩ চা চামচ
  • হলুদ ১/২
  • মধু ১ চা চামচ
  • কাচা দুধ ৩-৪ চা চামচ

বানানোর নিয়ম

একটি পরিষ্কার পাত্রে ২ থেকে ৩ চা চামচ বেসন নিন। এতে হাফ চামচ হলুদ, ১ চা চামচ মধু এবং ৩-৪ চা চামচ কাচা দুধ নিন। মিশ্রণ টি ভালো ভাবে নাড়তে থাকুন। ভালোভাবে মিক্স হলে তৈরি হয়ে গেল আপনার স্কিন গ্লোয়িং বেসন ও হলুদের ফেসপ্যাক।

আপনার ত্বক ভালোভাবে পরিষ্কার করে কিছুটা ড্রাই করুন। এবার একটি পরিষ্কার ব্রাশ এর সাহায্যে প্যাকটি ভালো ভাবে এপ্লাই করে নিন। হালকা শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। অল্প একটু শুকিয়ে গেলেই হাত দিয়ে ভালোভাবে ফেসপ্যাকটি ম্যাসাজ করে নিন। এরপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

সপ্তাহে ২ বার এই বেসন ও হলুদের ফেসপ্যাক ব্যবহার করুন। দেখবেন আপনার ত্বক উজ্জ্বল, ঝলমলে এবং গ্লাস স্ক্রিন এর মতো গ্লোয়ী দেখাবে।

মুখ ও শরীরের কালো দাগ দূর করতে বেসন ও হলুদের ফেসপ্যাক বা বডিপ্যাক

উপকরণ

  • ১টি পরিষ্কার বাটি
  • ১ চা চামচ পরিমান বেসন
  • ১ চিমটি হলুদ
  • ১-২ ফোটা লেবুর রস
  • পানি/দুধ/টকদই/গোলাপজল

বানানোর প্রক্রিয়া:

একটি বাটিতে এক চা-চামচ পরিমাণ বেসন নিন। তাতে ১ চিমটি হলুদের গুড়ো মিক্স করুন। এরপর এতে যোগ করুন ১-২ ফোটা লেবুর রস। কারো যদি লেবুতে এলার্জি থাকে তাহলে এটি দিবেন না। এবং শুষ্ক ত্বকের কেউ যদি এই প্যাকটি ব্যবহার করতে চান তাহলে লেবু মিক্স করবেন না।

এখন ফেসপ্যাকটিতে পরিমাণ মতো পানি মিক্স করে নিন। পানির পরিবর্তে আপনারা চাইলে গোলাপ জল, টকদই বা দুধ ও ব্যবহার করতে পারেন। উপাদান গুলো ভালো ভাবে নেড়ে একটি সুন্দর পেস্ট তৈরি করুন। সপ্তাহে ১-২ দিন এর ফেইসপ্যাক বা বডিপ্যাক টি আপনারা ব্যবহার করতে পারেন।

এই পেস্টটি আপনি আপনার মুখমণ্ডল, গলা এবং পুরো বডিতেই লাগাতে পারেন। এটি নিয়মিত ব্যবহার এ আপনার দীর্ঘদিন এর কালচে দাগ ও দূর হবে। এবং ত্বকে একটি উজ্জ্বল ও মসৃণ ভাব চলে আসবে।

আরো পড়ুনঃ টক দই দিয়ে ফর্সা ও উজ্জ্বল ত্বক পেতে ৫টি ফেসপ্যাক, টক দই মুখে মাখার উপকারিতা এবং নিয়ম, টক দই রেসিপি কমপ্লিট টিউটোরিয়াল

ত্বক উজ্জ্বল করতে বেসন, হলুদ এবং মধুর ফেইসপ্যাক

উপকরণ

  • বেসন ২-৩ চা চামচ
  • হলুদ ১ চিমটি
  • মধু ১-২ চা চামচ
  • গোলাপজল ২ চা চামচ

বানানোর প্রক্রিয়া

শুরুতেই একটি পরিষ্কার পাত্রে উপকরণ গুলো নিয়ে নিন। উপকরণ গুলোকে ভালো ভাবে পেস্টে পরিনত করতে প্রয়োজনে কিছু গোলাপজল ব্যবহার করুন। গোলাপজল কারো কাছে না থাকলে পানিও ব্যবহার করতে পারেন। কিন্তু গোলাপজল ব্যবহার করতে পারলেই সবচেয়ে ভালো হয়।

সবগুলো উপকরণ একসাথে মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি হয়ে গেলে আপনার ত্বক, গলা এবং হাতে পায়েও এই ফেইসপ্যাক ব্যবহার করতে পারেন। সপ্তাহে ২ বার এই ফেইসপ্যাকটি ব্যবহার করুন।

মনে রাখবেন বেসন লাগিয়ে শুকানোর পর বেশিক্ষন অপেক্ষা করবেন না। সাথে সাথেই ম্যাসাজ করে তা ধুয়ে ফেলবেন। এবং আপনার পছন্দের ময়শ্চরাইজার ব্যবহার করে নিবেন। বেসন ও হলুদের তৈরি ফেসপ্যাক আপনার ত্বক থেকে অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব দূর করে ত্বকে আর্দ্রতা নিয়ে আসবে। ত্বককে উজ্জ্বল এবং দাগহীন করতেও সাহায্য করবে।

আরো পড়ুনঃ

5/5 - (8 Reviews)
Subna Islam
Subna Islam
Articles: 36

Leave a Reply

Your email address will not be published.