৫ টি অ্যালোভেরা জেল মুখে ব্যবহারের নিয়ম

পৃথিবীর প্রত্যেকটি মানুষ সুন্দর হতে চায়। এজন্য আমরা আমদের ত্বকের যত্ন নিয়ে থাকি বিভিন্নভাবে। অনেকেই পার্লার গিয়ে প্রচুর টাকা খরচ করে সাজগোজ করে থাকে। এতে করে আমাদের ত্বকের যত্ন সঠিকভাবে নেয়া হয় না। ফলাফল, ত্বক শুস্ক হয়ে যায়, বিভিন্ন দাগ দেখা যায়। অতিরিক্ত টাকা খরচ না করেই আমরা ঘরে বসে আমাদের ত্বকের যত্ন নিতে পারি। এজন্য অ্যালোভেরা বা ঘৃতকুমারী ব্যবহার করতে পারি। আজকের এই পোস্টে আপনাদের সাথে অ্যালোভেরা জেল মুখে ব্যবহারের নিয়ম নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করে ত্বকের যত্ন নেয়ার প্রসঙ্গ উঠলে, অ্যালোভেরার কথা সবার আগে উঠে আসবে। কারণ, প্রায় সকল কসমেটিকস পন্যে অ্যালোভেরা ব্যবহার করা হয়ে থাকে। মুখের দাগ তোলা, সৌন্দর্য বৃদ্ধি, ত্বকের শুস্ক ভাব দূর করা, চুল ঘন এবং লম্বা করা, প্রায় সকল ধরণের কসমেটিক্স পন্যে অ্যালোভেরা এর ব্যবহার রয়েছে। এলোভেরাতে অনেক ঔষধি গুন রয়েছে। তাই তো মানুষ রূপ-চর্চায় ঘৃতকুমারী বা এলোভেরা এতো বেশি ব্যবহার করে। তো চলুন, এলোভেরা জেল মুখে ব্যবহারের নিয়ম এবং এলোভেরা এর উপকারিতা সমন্ধে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

অ্যালোভেরা মুখে লাগালে কি হয়

অ্যালোভেরা মুখে লাগালে অনেক উপকারিতা পাওয়া যায়। ত্বকের যত্নে অ্যালোভেরা অনেক উত্তম একটি উপাদান। নিম্নে অ্যালোভেরা এর সকল উপকারিতা দেখে নিতে পারেন।

  • সান বার্ন দূর করে।
  • চুলের বৃদ্ধি ঘটায়।
  • পায়ের গোড়ালি ফাঁটা কমায়।
  • একনে বা পিম্পল দূর করে।
  • ত্বকের যৌবন ধরে রাখে।
  • ত্বককে সজীব রাখে।
  • মেকআপ তুলতে প্রাকৃতিক উপাদান হিসেবে অনেকেই ব্যবহার করে।
  • ত্বকে বলিরেখা রোধ করে।

অ্যালোভেরা জেল মুখে ব্যবহারের নিয়ম

শুষ্ক ত্বকের যত্ন নেয়ার জন্য প্রত্যেকটি কসমেটিক্স পন্যে অ্যালোভেরা থাকে। কারণ এলোভেরাতে রয়েছে ত্বককে সজীব করার সকল উপাদান। কসমেটিক্স পন্য ব্যবহার না করেই আপনি এলোভেরা গাছের পাতা কিনে ব্যবহার করতে পারেন। অ্যালোভেরার ভিতর থেকে ছুরি দিয়ে জেল বের করে ত্বকে লাগালে ত্বক হবে মসৃণ , উজ্জ্বল এবং নরম। বাসায় বসে অ্যালোভেরা ব্যবহার করে ত্বকের যত্ন নেয়ার জন্য আপনি বাজার থেকে অ্যালোভেরা এর পাতা কিনে নিয়ে আসতে পারেন। এছাড়া, অ্যালোভেরা এর গাছ লাগাতে পারেন। অ্যালোভেরা এর পাতা থেকে ছুরি বা চামচ ব্যবহার করে জেল বের করতে হবে।

See also  ডায়াবেটিস রোগীর খাদ্য তালিকা

এরপর সেই জেল ব্যবহার করতে পারেন আপনার ত্বকে। ত্বক কিংবা চুল সবখানেই এলোভেরা ব্যবহার করতে পারেন। এটাই ছিলো অ্যালোভেরা জেল মুখে ব্যবহারের নিয়ম। এখন চলুন, অ্যালোভেরা এর অন্যান্য ব্যবহার সমূহ দেখে নেয়া যাক।

রোদে পোড়া ত্বকের যত্নে অ্যালোভেরা

গ্রীষ্মকালে রোদে একটু বের হলেই ত্বক পুড়বে। এ যেন চিরন্তন সত্য। সানবার্ন হলে অনেকেই বিভিন্ন ক্রিম ব্যবহার করে থাকে। কিন্তু, আমরা শুধুমাত্র অ্যালেভেরা দিয়ে সানবার্ন হওয়া ত্বকের যত্ন নিতে পারি। এজন্য অ্যালোভেরা এর পাতার ভিতরের জেল বের করে নিতে হবে। এরপর, সেই জেল মুখের ত্বকে ব্যবহার করতে হবে। ত্বকে অ্যালোভেরা লাগালে সেই স্থানে সুরক্ষিত বলয় তৈরি হয়। যা আপনার ত্বকের পুড়ে যাওয়া কোষ আবারও সতেজ করে তোলে। প্রচন্ড রোদে বাইরে যেতে হলে, অ্যালোভেরা মুখে লাগিয়ে যাবেন। এতে করে সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে সুরক্ষিত থাকবেন।

বয়সের ছাপ দূর করতে অ্যালোভেরা

বয়সের ভারে আমাদের ত্বকে ভাঁজ পরে যায়। ত্বক হয়ে যায় রুক্ষ। অ্যালোভেরাতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টস, যা আমাদের ত্বকের ভাঁজ দূর করে দিতে সক্ষম। আপনার ত্বকে যদি এমন ভাঁজ পড়ে যায়, তবে ত্বক আবারও সজীব করতে পারেন অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার করে। অ্যালোভেরা জেল মুখে ব্যবহারের নিয়ম তো ইতোমধ্যে জেনেছেন। অ্যালোভেরা পাতা থেকে অ্যালোভেরা জেল বের করে সেটি মুখে এবং চেহারার যেসব জায়গায় বয়সের ছাপ পড়েছে, সেসব জায়গায় ব্যবহার করুন।

অনেক দ্রুত আপনার ত্বকে আবারও উজ্জ্বলতা ফিরে আসবে। অ্যালোভেরা প্রতিদিন ব্যবহার করলে আমাদের ত্বকে থাকা সকল দাগ উঠে যায়। আপনি অ্যালোভেরা এর পাতা থেকে জেল বের করে ব্যবহার করতে পারেন। কিংবা, অ্যালোভেরা জেল বাজারে কিনতে পাওয়া যায়। বিভিন্ন কসমেটিক্স এর দোকানে পেয়ে যাবেন। প্রতিদিন ব্যবহার করলে আলাদা করে সৌন্দর্য বর্ধনে আপনাকে অতিরিক্ত টাকা খরচ করতে হবে না।

ঠোঁট এর রঙ উজ্জ্বল রাখতে অ্যালোভেরা

গোলাপি ঠোঁট কে না চায়? বাইরের ধুলা-বালু, ময়লা, সঠিকভাবে মুখ পরিষ্কার না করা, ঠোঁটের যত্ন না নেয়ার কারণে আমাদের ঠোঁটের রং হয়ে যায় কালচে। এজন্য অনেকেই ডিপ্রেশন এ ভুগে থাকেন। কেউ তো বিভিন্ন ক্রিম এবং ওষুধ কিনে ব্যবহার করেন। কিন্তু, দিন শেষে এসব পন্য আমাদের ঠোঁটের কালো দাগ দূর করতে পারে না। তাহলে আমরা আমাদের ঠোঁটের গোলাপি রং ধরে রাখবো কিভাবে? এজন্য ব্যবহার করতে পারেন অ্যালোভেরা। ঠোঁটের রং উজ্জ্বল রাখতে এবং ঠোঁট নরম ও মসৃণ করতে অ্যালোভেরা ব্যবহার করা যায়।

See also  সব ফুলের পিক ডাউনলোড করুন | ফুলের 4k ছবি | Flowers Picture

প্রতিদিন অ্যালোভেরা জেল ঠোঁটে লাগালে ঠোঁটের রং উজ্জ্বল হবে। ঠোঁটে থাকা সকল কালচে দাগ উঠে যাবে।

টিপস : অ্যালোভেরাতে অ্যান্টিসেপটিক উল্লেখযোগ্য গুনাগুনও রয়েছে। অ্যালোভেরা পাতার জেল চামচ দিয়ে বের ফ্রিজে রাখুন। শরীরের কোনো জায়গায় অল্প কেটে গেলে কিংবা ক্ষত হলে লাগান। দিনে দুই বা তিন বার লাগালেই ক্ষত আরাম হয়ে যাবে।

অ্যালোভেরা জেল মুখে ব্যবহারের নিয়ম সম্পর্কে তো জানলাম, তখন চলুন, দেখে নেয়া যাক, কিভাবে অ্যালভেরা দিয়ে বাসায় বসেই সিরাম বানাবেন।

অ্যালোভেরা দিয়ে তৈরি করুন সিরাম

সিরাম বানিয়ে সেটি ত্বকে ব্যবহার করে বিভিন্ন সমস্যা সমাধান করা সম্ভব। অ্যালোভেরা দিয়ে সিরাম বানাতে আমাদের প্রয়োজন হবে, গোলাপ জল এবং ভিটামিন ই । এই দুইটি উপাদান দিয়ে সহজেই সিরাম বানাতে পারবো। অ্যালোভেরা দিয়ে সিরাম বানাতে হলে আমাদের একটি পাত্রে অ্যালোভেরা জেল নিতে হবে। এরপর সেই পাত্রে পরিমাণমতো গোলাপ জল নিতে হবে। মিশ্রণ যেন একদম পাতলা না হয় সেদিকে লক্ষ রাখবেন। এরপর ভিটামিন ই ক্যাপসুল থেকে বের করে মিশিয়ে নিবেন। ব্যস, বাসায় বসে অ্যালোভেরা দিয়ে সিরাম তৈরি হয়ে গেলো। এখন এটি আপনার ত্বকে ব্যবহার করুন।

অ্যালোভেরা দিয়ে তৈরি সিরাম ব্যবহার করলে আপনার ত্বকের সজিবতা ফিরে আসবে, রুক্ষ ভাব দূর হবে, ত্বক থেকে বিভিন্ন দাগ দূর হবে, ত্বক হবে পূর্বের তুলনায় আরও সুন্দর।

ব্রণ ও তৈলাক্ত ভাব দূর করতে অ্যালোভেরা

মুখে ব্রণ উঠেনি এমন মানুষ বোধহয় খুঁজে পাওয়া একটু মুশকিল। ব্রণ উঠলে এটি যেমন বিরক্তিকর একটি অবস্থা সৃষ্টি করে, ঠিক তেমনি ব্রণ এর কারণে আমাদের ত্বকে অনেক অনাকাঙ্ক্ষিত দাগ সৃষ্টি হয়ে যায়। ব্রণ দূর করার জন্য এবং ব্রণ থেকে বেঁচে থাকার জন্য অনেকেই বিভিন্ন ফেস ওয়াশ ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু, আমরা ঘরে বসেই অ্যালোভেরা দিয়ে ব্রণ দূর করতে পারি। এজন্য অ্যালোভেরা, ভিটামিন ই এবং মধু মিশিয়ে একটি প্যাক বানাতে হবে। এ প্যাকটি নিয়মিত ব্যবহার করলে সেটি আমাদের ত্বক থেকে ব্রণ দূর করে দিবে এবং ব্রণ উঠা থেকে সুরক্ষিত রাখবে।

See also  স্বাস্থ্যকর দাঁত বজায় রাখার টিপস

মুখে তেলতেলে ভাব? হাত দিয়ে চিমটি দিলে তেল বের হয়? এর সমাধান কিন্তু আমরা অ্যালোভেরা থেকেই পেতে পারি। অ্যালোভেরা এর এত ঔষধি গুন রয়েছে, যা আমাদের ত্বকের সকল সমস্যা সমাধান করতে সক্ষম। মুখের তেলতেলে ভাব দূর করতে অ্যালোভেরা, ভিটামিন ই এবং মধু মিশিয়ে একটি প্যাক বানিয়ে ব্যবহার করতে পারি। এটি মুখ থেকে তেলতেলে ভাব দূর করতে অ্যালোভেরা জেল মুখে ব্যবহারের নিয়ম। প্রতিনিয়ত এভাবে অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার করুন।

সাধারণত জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী

অ্যালোভেরা জেল মুখে ব্যবহারের নিয়ম সম্পর্কে অনেকের মনেই বিভিন্ন প্রশ্ন রয়েছে। অ্যালোভেরা দিয়ে যেমন আমরা সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে পারি, তেমনি এটি আমাদের শরীরের জন্য উপকারী। অ্যালোভেরা দিয়ে জুস বানিয়ে খাওয়া যায়। তো চলুন। অ্যালোভেরা জেল মুখে ব্যবহারের নিয়ম সম্পর্কিত সকল প্রশ্ন ও উত্তর দেখে নেয়া যাক।

অ্যালোভেরা জেল মুখে ব্যবহারের নিয়ম কি?

অ্যালোভেরা জেল মুখে ব্যবহারের নিয়ম হচ্ছে, অ্যালোভেরা পাতা থেকে জেল বের করে নিবেন। এক্ষেত্রে চামচ বা ছুরি ব্যবহার করবেন। এরপর সেগুলো আপনার ত্বকে ব্যবহার করুন। 

অ্যালোভেরা জেল মুখে মাখলে কি হয়?

উপরে আমি যে সকল অ্যালোভেরা জেল মুখে ব্যবহারের নিয়ম নিয়ে আলোচনা করেছি, সেগুলো মেনে অ্যালোভেরা ব্যবহার করলে অনেক উপকারিতা পাওয়া সম্ভব। ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি, সানবার্ন রিকভার করা, বিভিন্ন দাগ দূর করা, ব্রণ এর দাগ দূর করা ইত্যাদি উপকারিতা রয়েছে অ্যালভেরাতে।

অ্যালোভেরা জেল চুলে ব্যবহারের নিয়ম কি?

এই পোস্টে ইতোমধ্যে অ্যালোভেরা জেল মুখে ব্যবহারের নিয়ম নিয়ে আলোচনা করছি। তবে আপনি অ্যালোভেরা জেল চুলে ব্যবহার করতে পারবেন। চুল লম্বা এবং সতেজ হবে। চুলের ডগা ফাটা রোগ দূর হবে। অ্যালোভেরা দিয়ে খুসকি থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

আরো পড়ুন: এলোভেরার উপকারিতা ও অপকারিতা

Rate this post
Subna Islam
Subna Islam
Articles: 80

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *