বাঙ্গির পুষ্টিগুণ | Food & Fitness

বাঙ্গির পুষ্টিগুণ

বাঙ্গি!! নামটা শুনলেই নাক ছিটকানো  একটা ব্যাপার চলে আসে তাই না?কিন্তু আমরা কি জানি এটার পুষ্টিগুণ সম্পর্কে? আমরা হয়ত অনেকেই জানি না বাঙ্গিতে রয়েছে অনেক ধরনের পুষ্টি যা আমাদের উপকার করে থাকে।

ফুটি, বাঙ্গী বা বাঙ্গি বা কাঁকুড় এক রকমের শশা জাতীয় ফল । ছোট এবং লম্বাটে জাতকে চিনাল বলা হয়। ফুটি বেশ বড় আকারের হয়, কাঁচা ফল সবুজ, পাকলে হলুদ রঙের হয় এবং ফেটে যায়। ফলের বাইরের দিকটা মিষ্টি কুমড়ার মতো হালকা ডোরা কাটা খাঁজযুক্ত। খেতে তেমন মিষ্টি নয়,বেলে ধরণের।এর ভেতরটা ফাঁপা থাকে।বাঙ্গিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে আঁশ যা হজমশক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এটা সাধারণ মাটিতে হয়ে থাকে। 

এ প্রতিবেদনে আমরা  বাঙ্গির পুষ্টিগুণ সম্পর্কে জানব

★★পুষ্টিগুণঃ

বিভিন্ন খনিজ পদার্থ, নানা রকম ভিটামিন এবং ফলিক এসিড সমৃদ্ধ বাঙ্গি খুবই উপকারী এবং পুষ্টিগুণ সম্পূর্ণ একটি ফল। প্রতি ১০০ গ্রাম বাঙ্গিতে আছে পানি ৭৩.২ গ্রাম, আমিষ ২.৯, শর্করা ২৩.৮ গ্রাম, ক্যালসিয়াম ১১ মিলিগ্রাম, আয়রন ১.৮ মিলিগ্রাম, ভিটামিন বি১ ৭.০২ মিলিগ্রাম, ভিটামিন বি২ ১১.০৫ মিলিগ্রাম, ভিটামিন সি ৫১ মিলিগ্রাম, ভিটামিন এ ৮৫ মিলিগ্রাম, খাদ্যশক্তি ১০৪ কিলোক্যালরি এবং বিভিন্ন খনিজ পদার্থ ১ গ্রাম। এসব পুষ্টি উপাদান নানাভাবে আমাদের শরীরকে সুস্থ্য রাখতে সাহায্য করে।

★★উপকারিতাঃ

**বয়স ধরে রাখে: বাঙ্গি ত্বকের বয়সের ছাপ দূর করে। এটি ত্বকের কোষ নষ্ট হয়ে গেলে তা ঠিক করতে সাহায্য করে। বাঙ্গির প্রোটিন কম্পাউন্ড ত্বককে করে সুন্দর। বাঙ্গি মধুর সঙ্গে মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে দিন। এভাবে নিয়মিত ব্যবহার করুন।

**দূর করে ব্রণ, একজিমা: ব্রণ বা একজিমার সমস্যায় ভুগলে প্রতিদিন এক গ্লাস বাঙ্গির শরবত খান। এ ছাড়াও বাঙ্গি ভালো করে ব্লেন্ড করে ছেঁকে রসটুকু বের করে তা লোশনের মতো ব্যবহার করুন। এতে ব্রণ এবং একজিমার সমস্যা দূর হয়।

**চুল পড়া কমায়: বাঙ্গিতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘বি’। এর একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান ‘ইন্সনিটোল’, যা আমাদের চুল নতুন করে গজাতে সাহায্য করে এবং চুল পড়া প্রতিরোধ করে থাকে। তাই নিয়মিত বাঙ্গি খেলে চুলের অনেক উপকার পাওয়া যায়। এ ছাড়া ব্লেন্ড করা বাঙ্গি শ্যাম্পু করার পর চুলে কন্ডিশনারের মতো ব্যবহার করাও ভালো।

**কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে: বাঙ্গিতে আছে প্রচুর পরিমাণে আঁশ বা ডায়াটারি ফাইবার, যা খাবার হজমে সাহায্য করে। কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে।

**রক্ত তৈরি ঃবাঙ্গিতে রয়েছে প্রচুর পরিমানে ফলিক এসিড যা দেহে রক্ত তৈরী করতে সাহায্য করে। 

**ওজন কমাতেঃ বাঙ্গিতে কোন চর্বি নেই যারা দেহের ওজন নিয়ে চিন্তিত আছেন তারা এটা গ্রহণ করতে পারেন।

**গর্ভবর্তী মায়েদের জন্য ঃ গর্ভবর্তী মায়েদের শরীরে অনেক রক্তের প্রয়েজন হয়, বাঙ্গিতে ফলিক এসিড  থাকার কারণে মায়েরা এটা খেতে পারেন।

**ডায়বেটিস রোগীদের জন্য ঃ বাঙ্গিতে চিনির পরিমাণ কম থাকায় ডায়াবেটিস রোগীরাও খেতে পারেন।

Rate this post

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *